Community Police Details

দঃ২৪পরগনা জেলার মথুরাপুর থানার অন্তর্গত কৃষ্ণচন্দ্রপুর হাই স্কুলের এক দুঃস্থ, গরীব পরিবারের সদস্য রাখিয়াজ মোল্লা এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৬৮১ (৯৭.৩০%) নম্বর পেয়ে সকলের প্রশংসা কুড়িয়েছে। ওর পিতা একজন দিনমজুর। করোনা জনিত লকডাউন এবং আমফান ঝড়ের কারনে তার পিতা এখন প্রায়কর্মহীন। সংসারের আর্থিক মন্দা অবস্থা কাটানোর জন্য রাখিয়াজের মা ও সম্প্রতি মহিলাদের পরিধেয় জামা তৈরীর কাজে হাত লাগিয়েছেন। এত প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও রাখিয়াজ তার অধ্যয়ন থেকে দূরে সরে যায় নি এবং সে কঠোর পরিশ্রম করে সে আজ সারা রাজ্যে ১২ তম স্থান করেছে। সুন্দরবন জেলা পুলিশ এই অসামান্য কৃতিত্বের অধিকারীকে তার ভবিষ্যতের বিজ্ঞান শাখায় স্নাতক হয়ে চিকিৎসা শাস্ত্রে অধ্যয়নের স্বপ্ন কে বাস্তবায়িত করার স্বার্থে এবং বর্তমান সামাজিক অবস্থায় বিদ্যালয়ে পঠনপাঠন অনলাইনে শুরু হবার ফলে গত ১০/৮/২০২০ তারিখে মাননীয় পুলিশ সুপার শ্রী বৈভব তিওয়ারি, আই.পি.এস উক্ত কৃতি ছাত্রের হাতে একটি সুন্দর ল্যাপটপ উপহার দেন। মথুরাপুর থানার তরফ থেকে কৃতি ছাত্র রাখিয়াজের উজ্বল ভবিষ্যৎের কথা মাথায় রেখে তাকে নগদ আর্থিক সাহায্য করা হয়, যাতে তার পড়াশোনার ব্যয়ভার বহন করতে কোন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয়। সুন্দরবন জেলা পুলিশের সকল সদস্যদের পক্ষ থেকে আমরা এই কৃতি ছাত্র রাখিয়াজ মোল্লা এবং তার পরিবার কে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। Rakhiyaz Molla, a 15 year old boy scored 681 marks out of 700 in the Madhyamik exam 2020 which is 97.3%. He secured 12th rank in the state of WB. His father Allauddin Molla is mason and mother a small time tailor at Village Dakaitpara, PO- Krishnachandapur, PS- Mathurpaur. Their combined monthly income is not even enough to meet their basic needs. Despite having such adverse social and economic condition, the boy studied hard and made his family proud. Sundarban Police District felicitated the young boy yesterday. He had expressed his desire to study even during the lockdown as schools are closed. So we gave a him a laptop so that he can attend online classes. Mathurapur PS also have him cash reward so that he does not have to bother about his educational expenses. We wish the boy and his family very best for a good future.